Facilities

উপযুক্ত কর্মসংস্থান ও সৎভাবে জীবন-যাপনের সুযোগ :

* মেধা ও যোগ্যতা অনুসারে চাকরি ক্ষেত্রে সহায়তা করা হবে,
* কম মেধা সম্পন্ন শিক্ষার্থীদের বিদেশ প্রেরণে ঘুর্নায়মান তহবিল থেকে আর্থিকভাবে সহায়তা প্রদান করা হবে।

ঘুর্নায়মান তহবিল :

শিক্ষার্থীদের কর্মসংস্থানের জন্য একটি পৃথক তহবিল থাকবে। এই তহবিল থেকে কর্মসংস্থান চাকুরি সুত্রে বিদেশ গমনের জন্য ঋণ দেয়া হবে। পরবর্তীতে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কিস্তি আকারে ঋণের টাকা পরিশোধ করতে হবে।

উপযুক্ত লালন-পালন : মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তানরা যে সুযোগ-সুবিধা পায় সালেহা-সফর শিশু আনন্দ নিকেতনের শিক্ষার্থীদের তা প্রদান করা হবে। তাদের পিতামাতার শূণ্যতাবোধ না করার প্রতি নজর দেয়া হবে।

শিক্ষাদান পদ্ধতি :

১. প্রতিদিন সকালে ধর্মীয় শিক্ষা নেয়া সবার জন্য বাধ্যতামূলক,
২. একাডেমিক শিক্ষার জন্য বিদ্যালয় বা ইসলামিক শিক্ষার জন্য মাদ্রাসায় প্রেরণ করা হবে,
৩. আনন্দ নিকেতনের শিক্ষা নিকেতনের সকল শিক্ষার্থীদের জন্য বৃত্তিমূলক বাধ্যতামূলক,
৪. নিকেতনের সকল শিক্ষার্থীর জন্য খেলাধুলা বাধ্যতামূলক,
৫. মেধা বিকাশে সাধারণ জ্ঞান চর্চা বাধ্যতামূলক,
৬. পড়াশোনা ও খেলার ফাঁকে কাজের অভ্যাস গড়ে তোলা। যেমন-
* সবজি বাগান * মাছ চাষ * মুরগী পালন * বৃক্ষরোপন * কৃষি কাজ
facilities

ধর্মীয় শিক্ষক ও হাউস টিউটর :

সালেহা-সফর শিশু আনন্দ নিকেতনের শিক্ষার্থীদের ধর্মীয় মূল্যবোধ মেনে বেড়ে ওঠা, বৃত্তিমূলক শিক্ষা নেয়া নিশ্চিত করতে ধর্মীয় শিক্ষক ও হাউস টিউটর থাকবে।

নিজস্ব ইউনিফর্ম ও পরিচয় পত্র :

সালেহা-সফর শিশু আনন্দ নিকেতনের শিক্ষার্থীদের সবার জন্য নিজস্ব ইউনিফর্ম (ডিএমপি সবুজ রঙের শার্ট/পাঞ্জাবি ও গাঢ় নীল রঙের হাফ/ফুল প্যান্ট/পাজামা) ও পরিচয়পত্র ব্যবহার বাধ্যতামূলক।
facilities

বই-খাতা ও পোশাক সরবরাহ :

সালেহা-সফর শিশু আনন্দ নিকেতনের পক্ষ থেকে বিনামূল্যে সকল শিক্ষার্থীদের বই-খাতা ও পোশাক সরবরাহ করা হবে।
facilities

খাবার ও আবাসন নিশ্চয়তা :

সালেহা-সফর শিশু আনন্দ নিকেতনের পক্ষ থেকে বিনামূল্যে সকল শিক্ষার্থীদের খাবার ও আবাসন ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে।

অভিভাবক দিবস :

প্রতি মাসের শেষ শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত সালেহা-সফর শিশু আনন্দ নিকেতনের শিক্ষার্থীদের বাবা-মা, ভাই-বোন, অভিভাবক বা আত্মীয়স্বজন দেখা করতে পারবে।

বহিস্কার :

শিক্ষার্থীদের অবশ্যই সালেহা-সফর শিশু আনন্দ নিকেতনের সকল নিয়ম মেনে চলতে হবে। নিয়ম ভঙ্গকারিকে সালেহা-সফর শিশু আনন্দ নিকেতন থেকে বহিস্কার করা হবে।

সেশন :

অন্য সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মতোই জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর মাস সেশন গণ্য করা হবে।

ভর্তির সময় কাল :

সালেহা-সফর শিশু আনন্দ নিকেতনে প্রতি বছর ১৫ ডিসেম্বর থেকে ১৫ জানুয়ারি মাসে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে।

বার্ষিক ছুটি :

প্রতি বছর তিনবার ছুটি প্রদান করা হবে। ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহায় ৭ দিন করে এবং বার্ষিক পরীক্ষার পর সর্বোচ্চ ১৫ দিন ছুটি থাকবে।

অর্থ সংস্থান :

সালেহা-সফর শিশু আনন্দ নিকেতন একটি পারিবারিক প্রতিষ্ঠান। তাই প্রতিষ্ঠান পরিচালনায় গাজী মো. সফর আলী’র পরিবার অর্থ সংস্থান করবে। তবে স্বেচ্ছায় নিঃস্বার্থভাবে দেয়া অনুদান গ্রহণ করা হবে।